দোয়া চেয়েছেন কাজী হায়াৎ

20

দেশের নন্দিত চলচ্চিত্র নির্মাতা, প্রযোজক ও অভিনেতা কাজী হায়াৎ করোনার সঙ্গে লড়াই করছেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে পর্যন্ত নিতে হয়। আর সেখানে শুয়েই নিজের রোগমুক্তির জন্য দোয়া চেয়েছেন তিনি। এক ভিডিওবার্তায় দেশবাসীর কাছে এ দোয়া চান তিনি। কাজী হায়াৎ-এর ছেলে চিত্রনায়ক মারুফ নিজের ফেসবুকে ভিডিওটি প্রকাশ করেছেন। ভিডিওতে কাজী হায়াৎ বলেন, আমি এই মুহূর্তে আইসিইউতে, ভালো আছি। আমার জন্য দোয়া করবেন সবাই। হয়তো এই যাত্রায় বেঁচেও যেতে পারি! আল্লাহর কাছে আপনাদের দোয়া অবশ্যই গ্রহণযোগ্য হবে।
মানুষের দোয়া, সারা বাংলাদেশের ভক্তদের দোয়া আমাকে বাঁচিয়ে রাখবে। বাবার অসুস্থতার কারণে সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন তার ছেলে অভিনেতা কাজী মারুফ। তিনি বলেন, বাবাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। করোনা রোগীরা সাধারণত বেশি দুর্বল হয়ে পড়ে। বাবার শরীরও অনেক দুর্বল। বয়সের কারণে করোনার ধকলটা তিনি সামলাতে পারছেন না। ৯৬ শতাংশ পরিস্থিতির কারণে তাকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে। এ অবস্থায় তাকে আরও দুই দিন থাকতে হবে। গতকাল পর্যন্ত বাবা ডা. সামনের তত্ত্বাবধানে ছিলেন। এখন তিনি অন্য একজন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে আছেন। গত ২ মার্চ করোনার টিকা নেন কাজী হায়াৎ। এরপর ৬ মার্চ সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। তারা দুজনই চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। গত ১০ মার্চ কাজী হায়াৎ স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি জানান। তবে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ১৫ মার্চ রাজধানীর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় কাজী হায়াৎ-কে।