ঘূর্ণিঝড় আমফান আরও শক্তিশালী হচ্ছে

112

ভারতের আবহাওয়া দপ্তর আজ রবিবার জানিয়েছে, প্রাক বর্ষা ঘূর্ণিঝড় আমফান এখন বঙ্গোপসাগরের ওপর দাঁড়িয়ে শক্তি সঞ্চয় করছে। দীঘা থেকে প্রায় হাজার কিলোমিটার দূরে এখন এটির অবস্থান। যে কোনও সময়ে এটি দিক পরিবর্তন করে অন্য দিকে চলে যেতে পারে বটে কিন্তু এখন পর্যন্ত যা দেখা যাচ্ছে তাতে আজ রবিবার রাত থেকে কাল সকালের মধ্যে এটি আরও বেশি শক্তি সঞ্চয় করে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। তবে আমফান সবচেয়ে বেশি ভয়াবহ আকার ধারণ করবে খুব সম্ভবত মঙ্গলবার এবং বুধবার এটির প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হয়ে ভারতের সাগরদ্বীপ ও বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপের মাঝখান দিয়ে স্থলভাগের ওপরে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ভারত সরকার মৎস্যজীবীদের সকলকে অনুরোধ করেছে, যে যেখানেই থাকুন আজ সন্ধ্যার আগেই যেন তাঁরা নিজের নিজের বন্দরে ফিরে আসেন। কারণ এখনও এটির অতি প্রবল সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে সামান্য সময় হয়তো বাকি আছে, কিন্তু সমুদ্রের ওপর ওটির গতিবেগ ১০০ কিলোমিটারের বেশি হওয়ার সম্ভাবনা এবং সর্বোচ্চ গতিবেগ এমনকি ১৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। যদিও স্থলভাগের ওপরে আছড়ে পড়ার সময় স্বভাবতই এর শক্তি অনেকটা কমে যাবে, কিন্তু তা না হওয়া পর্যন্ত সমুদ্রে সবাইকে যেতে বারণ করা হয়েছে।

যদিও করোনার আবহে এখন সমুদ্রতীরের পর্যটন স্থানগুলোতে পর্যটক কেউ নেই, তবে স্থানীয় বাসিন্দারা যাতে সাবধানে থাকেন, সমুদ্রের কাছাকাছি না যান সে কথাই বারবার প্রশাসন থেকে বলে সতর্ক করে দেওয়া হচ্ছে।