ফ্যাসিবাদবিরোধী নেটওয়ার্ককে সন্ত্রাসী সংগঠন ঘোষণা করবেন ট্রাম্প

84

মিনিয়াপোলিসে জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে রাতভর বিক্ষোভ চলছে। এমন প্রেক্ষাপটে ফ্যাসিবাদবিরোধী নেটওয়ার্ক অ্যান্টিফাকে সন্ত্রাসী সংগঠন ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।-খবর টেলিগ্রাফ ও আল-জাজিরার

রোববার সকালের দিকে বিক্ষোভকারীদের ‘অ্যান্টিফা নেতৃত্বাধীন নৈরাজ্যবাদী’ বলে আখ্যায়িত করেন তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট মূলত এই বিক্ষোভকে দমন করতে চাচ্ছেন।

বিভিন্ন সংগঠন ও ধারনার সমন্বয়ে গঠিত প্রান্তিক আন্দোলন ফ্যাসিবাদবিরোধী এই নেটওয়ার্ক। ১৯৮৫ সালে যুক্তরাজ্যে এটির প্রতিষ্ঠার পর থেকে ব্যাপকভিত্তিক বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদবিরোধী কার্যক্রমে লিপ্ত রয়েছে তারা।

ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ২৬টির বেশি শহরে কারফিউ জারি করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

লস অ্যাঞ্জেলেস, শিকাগো, সান ফ্রান্সিসকো ও মিয়ামিসহ বড় বড় শহরগুলোতে কিছুটা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

সোমবার মিনেসোটার এক পুলিশ কর্মকর্তা ফ্লয়েডের ঘাড় আট মিনিটেরও বেশি হাঁটু দিয়ে চেপে রাখলে নিহত হন ফ্লয়েড। শুক্রবার ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে তৃতীয় ডিগ্রির হত্যার মামলার অভিযোগ আনা হয়েছে।

মিনেসোটা, লস অ্যাঞ্জেলেস ও আটলান্টায় ন্যাশনাল গার্ড সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ সহিংসতা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ওয়াশিংটন ডিসিতে ট্রাম্প বলেন, হোয়াইট হাউসের বেড়ায় উঠতে চেষ্টা করলে বিক্ষোভকারীদের জন্য নৃশংস কুকুর অপেক্ষা করছে।

ফ্লয়েড হত্যার ঘটনায় গণবিক্ষোভের মধ্যে সেনাবাহিনীকে সতর্ক রেখেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। খুব শিগগিরই সেনা মোতায়েন করা হবে বলে তিনি দাবি করেন।

হোয়াইট হাউসের বাইরে বিক্ষোভ মোকাবেলায় তার সমর্থকেদের আহ্বান জানানোর পরে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী সহিংসতা উসকে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।