করোনা সংক্রমণের মধ্যেই সাউথ ডাকোটায় আজ ট্রাম্পের অনুষ্ঠান

82

যুক্তরাষ্ট্রের আগাম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প আজ সাউথ ডাকোটা অঙ্গরাজ্যের মাউন্ট রাশমোরে যাচ্ছেন এবং অনুমান করা হচ্ছে এই অনুষ্ঠানে হাজার হাজার লোক সমবেত হবেন। যুক্তরাষ্ট্রে এখন যদিও কভিড১৯ এ আক্রান্ত রোগির সংখ্যা সর্বাধিক, স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন ঐ অনুষ্ঠানে শারিরীক দূরত্ব বজায় রাখা কিংবা মাস্ক পরার কোন পরিকল্পনা করা হয়নি। তবে যারা চান তাঁদের জন্য বিনা মূল্যে মাস্ক পাওয়া যাবে। সাউথ ডাকোটার রিপাবলিকান গভর্ণর ক্রিস্টি নোয়েম এ সপ্তার গোড়ার দিকে ফক্স নিউজকে বলেছিলেন, “আমরা বলেছি, যারা এ নিয়ে উদ্বিগ্ন, তারা ঘরেই থাকতে পারে”।

দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকা জানাচ্ছে যে এ সপ্তায় ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের অ্যারিজোনা সফর মঙ্গলবারের পরিবর্তে বুধবার পিছিয়ে নেয়া হয় কারণ ঐ সফরের ব্যবস্থাপনায় নিযুক্ত গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তারা হয় ঐ ভাইরাসে সংক্রমিত হয় নয়তো তাদের মধ্যে এর লক্ষণ দেখা যায়। গতকাল যুক্তরাষ্ট্রে পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি লোক করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন বলে জানা গেছে। নতুন সংক্রমণের অর্ধেকটাই ঘটেছে চারটি রাজ্যে। রাজ্যগুলো হলো, অ্যারিজোনা, ক্যালিফোর্ণিয়া, ফ্লরিডা এবং টেক্সাস। বিশ্বে এখন এক কোটি দশ লক্ষ লোক কভিড ১৯ এ সংক্রমিত আর যুক্তরাষ্ট্রে এই সংক্রমিত রোগির সংখ্যা প্রায় তিরিশ লক্ষ। অস্ট্রেলিয়ার কর্মকর্তারা বলছেন গত সপ্তায় ভিক্টোরিয়া প্রদেশের দশ হাজার লোক করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাতে অস্বীকৃতি জানায় কারণ তারা মনে করে এই সংক্রমণ সত্যি নয়, এটি একটি ষড়যন্ত্র তত্ব।

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে যে অষ্ট্রেলিয়া কভিড ১৯ এ সংক্রমণ সর্বনিম্ন পর্যায়ে রাখতে সফল হবার পর এখন তারা তিন লক্ষ লোক অধ্যূষিত একটি এলাকায় লকডাউন আরোপ করেছে। ভিক্টোরিয়া প্রদেশের ঐ এলাকায় প্রধানত অভিবাসীরাই বসবাস করে। ভারত আজই জানিয়েছে যে প্রতিদিন সেখানে নতুন করে প্রায় একুশ হাজার লোক সংক্রমিত হচ্ছেন। ভারত গতকাল জানায় যে গত চারদিনে সেখানে আরও এক লক্ষ লোকের সংক্রমণ ঘটেছে। জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি আজ সকালে জানিয়েছে যে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোতে ছয় লক্ষ পঁচিশ হাজারের কভিড ১৯’এ সংক্রমিত হয়েছেন। ও দিকে দক্ষিণ আফ্রিকা জানিয়েছে , গত ২৪ ঘন্টায় সেখানে নতুন করে ৮,১০০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গতকাল বলেন যে ব্রিটেনে আগত ভ্রমণকারীদের উপর থেকে তিনি বাধ্যতামূলক কোয়ারান্টিনে থাকার নিয়ম শিথিল করছেন। তিনি বলেন আজ অথবা আগামিকাল তিনি এ ব্যাপারে নতুন করে ঘোষণা দেবেন। মেক্সিকোতে চিকিৎসা সামগ্রী সরবরাহকারী একটি প্রতিষ্ঠান মানুষবিহীন ড্রোনের মাধ্যমে মাস্ক , গ্লোভস এবং অন্যান্য সাজসরঞ্জাম হাসপাতালগুলোতে পাঠাচ্ছে। সেখানে সুরক্ষাকারী সাজ সরঞ্জামের অভাবের কারণে চিকিৎসক, নার্স এবং অন্যান্য চিকিৎসাকর্মী গোটা দেশে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছেন