আরো একটি ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে সাফল্যের দাবি রাশিয়ার

110

বিশ্বের প্রথম করোনার ভ্যাকসিন নথিভুক্ত করেছে রাশিয়া। ‘স্পুটনিক-৫’ নামক ওই ভ্যাকসিনের পর এবার ‘এপিভ্যাককরোনা’ নামের আরেকটি ভ্যাকসিনের ট্রায়ালে সাফল্য দাবি করেছে রাশিয়া।

জানা গেছে, ‘এপিভ্যাককরোনা’ নামক ভ্যাকসিনটি বানিয়েছে রাশিয়ার ভেক্টর স্টেট রিসার্চ সেন্টার অফ ভাইরোলজি অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি। রাশিয়াতে ভ্যাকসিনটির তৃতীয় স্তরের ট্রায়াল চলছে। জানা গেছে সেপ্টেম্বরেই ট্রায়াল শেষ হবে।

ভেক্টর স্টেট রিসার্চের ভাইরোলজিস্টরা বলেছেন, প্রথম দফায় ৫৭ জনের শরীরে টিকা দেওয়া হয়েছিল। প্রথম ডোজ দেওয়ার ১৪-২১ দিনের মাথায় দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়। দেখা গেছে, প্রত্যেকের শরীরেই অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের একটা বড় অংশের মতে, করোনার ভ্যাকসিন তৈরিতে তাড়াহুড়ো করেছে রাশিয়া। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও রাশিয়ার টিকার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। এদিকে, রাশিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে আমেরিকা এবং চীনও। এক চীনা কোম্পানি ইতিমধ্যেই কার্যকরী এবং উপযোগী করোনা ভ্যাকসিন তৈরির দাবি করেছে। মার্কিন সংস্থা ফাইজারও শুক্রবার দাবি করেছে, তাদের তৈরি ভ্যাকসিনের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের ফলাফল ভাল। এবং তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালও শুরু হয়েছে। অক্টোবরেই তা শেষ হবে। এবং শেষ হলেই তারা ভ্যাকসিন রিভিউয়ের জন্য পাঠাবে। টাইম অব ইন্ডিয়া।