ডাক মারফত ভোট দেওয়া নিয়ে ট্রাম্পের উদ্বেগকে হোয়াইট হা্‌উজের সমর্থন

65

এ মর্মে একটি খবর প্রকাশ পাওয়ায় যে রাশিয়ার দূরভিসন্ধিমূলক মহল যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সম্ভাব্য জালিয়াতির বিষয়ে, প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের উপর্যুপরি সতর্কবার্তারই প্রতিধ্বনি তুলছে, হোয়াইট হাউজের কর্মকর্তারা নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে বাইরের হস্তক্ষেপ থেকে সুরক্ষিত রাখার বিষয়ে তাদের প্রচেষ্টার পক্ষে কথা বলছেন। জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও ব্রায়ান গতকাল সংবাদদাতাদের বলেন, “ আমাদের নির্বাচনের পবিত্রতা রক্ষার জন্য আমরা যথাসাধ্য সব কিছুই করবো।” তিনি আরও বলেন যে হোয়াইট হাউজ এবং প্রেসিডেন্ট নভেম্বরের নির্বাচনকে সুরক্ষিত রাখতে অভুতপূর্ব পদক্ষেপ নিয়েছেন।

তিনি বলেন আমরা প্রকাশ্যে জানাইনি কিন্তু আমরা চীন, রাশিয়া, ইরান এবং অন্যান্যদের কাছে এ কথাটা খুব পরিস্কার করেই বলেছি যে কেউ যদি আমেরিকান নির্বাচনে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করে, তা হলে তাকে মারাত্মক পরিণতির সম্মুখীন হতে হবে।

এই নিশ্চয়তার ঠিক আগে স্বরাষ্ট্র সুরক্ষা বিভাগের ফাঁস হয়ে যাওয়া এক বুলেটিন প্রকাশিত হয়, যাতে বলা হয়েছে রাশিয়া এই আশংকা উস্কে দিচ্ছে যে ডাক মারফত ভোটের ফলাফল ভুল হবে। সবার আগে এবিসি নিউজ এই বুলেটিনটি পায় যেখানে বলা হয়েছে, অন্তত ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে রাশিয়ার দূরভিসন্ধিমূলক প্রভাব বিস্তারকারীরা ভোটদানের নতুন প্রক্রিয়া এবং ডাক মারফতে নির্বাচনে সততা সম্পর্কে অভিযোগ অতিরঞ্জিত করে প্রকাশ করছে। ঐ বুলেটিনে বলা হয়েছে যে কভিড ১৯ এর এই সময়ে রাশিয়া সম্ভবত ডাক মারফত ভোট এবং ভোটের পরিবর্তিত প্রক্রিয়া সম্পর্কে সমালোচনাকে অতিরঞ্জিত করে প্রকাশ করবে, যাতে এই নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় জনগণের আস্থাকে খর্ব করা যায়।

কয়েক মাস ধরেই ট্রাম্প ডাকে ভোট দেওয়া সম্পর্কে তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করে আসছেন। গতকাল হোয়াইট হাউজের শীর্ষ কর্মকর্তারা ডাক মারফত ভোটদান সম্পর্কে প্রেসিডেন্টের মন্তব্যকে যথার্থ বলে উল্লেখ করেন।