বাংলাদেশের সঙ্গে কৌশলগত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে প্রস্তত চীন: শি জিনপিং

169

বাংলাদেশের সঙ্গে চীনের কৌশলগত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। রবিবার দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ৪৫তম বার্ষিকীতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বিনিময় করা শুভেচ্ছা বার্তায় একথা বলেছেন তিনি।

শুভেচ্ছা বার্তায় শি জিনপিং বাংলাদেশের সঙ্গে চীনের স্থিতিশীল ও দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বের প্রশংসা করেছেন। চীনা প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন কৌশলের অংশীদার হতে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে কাজ করতে তিনি প্রস্তুত।

চীনা প্রেসিডেন্ট আরও বলেছেন, বিআরআই-এর ফ্রেমওয়ার্কের আওতায় সহযোগিতা বৃদ্ধি এবং বাংলাদেশ-চীন সম্পর্ক ও সহযোগিতামূলক অংশীদারিত্ব নতুন পর্যায়ে নিয়ে যেতে চান।

২৬০০ কোটি ডলার চীনা বিনিয়োগ ও ৩৮০০ কোটি ডলার বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতিতে চীনের বিশাল অবকাঠামো প্রকল্পের অন্যতম বৃহৎ গ্রহীতায় পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া বাংলাদেশি ৯৭ শতাংশ পণ্যে শূন্য শুল্ক সুবিধা দিচ্ছে চীন।

বিআরআই ফ্রেমওয়ার্কের আওতায় চীন রেল, সমুদ্র ও সড়ক পথে এশিয়া থেকে ইউরোপ ও আফ্রিকাজুড়ে প্রাচীন বাণিজ্য পথ সিল্করুট পুনরায় চালু করতে চায়। এই উদ্যোগটি আগে ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড বলে পরিচিত ছিল। চীন ও ভারতের মধ্যে বিরোধের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে আছে এই উদ্যোগ। পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে এই করিডোরের একটি অংশ রয়েছে। যা ভারতের আপত্তির কারণ।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে পাঠানো বার্তায় শি জিনপিং করোনাভাইরাস মোকাবিলায় একসঙ্গে কাজ করার কথাও উল্লেখ করেছেন।

এর আগে চীন বাংলাদেশ একটি মেডিক্যাল টিম পাঠিয়েছে নিজেদের করোনা মোকাবিলায় অভিজ্ঞতা বিনিময় করতে। চীনের উদ্ভাবিত সম্ভাব্য করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালও বাংলাদেশে হতে পারে। সূত্র: এনডিটিভি।