দায়িত্ব নেয়ার ৫ দিন পরই পেরুর ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ

133

আইন প্রণেতাদের চাপের মুখে দায়িত্ব গ্রহণের এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মাথায় পদত্যাগ করেছেন পেরুর অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল মেরিনো।

সাবেক প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারার ক্ষমতাচ্যুতিকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট বিক্ষোভে দুইজনের মৃত্যুর পর রোববার তিনি পদত্যাগ করেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, মেরিনোর পদত্যাগের পর পেরুর অসংখ্য মানুষকে রাস্তায় নেমে, দেশের পতাকা উড়াতে ও থালা-বাসনে শব্দ করে আনন্দ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

রোববার টেলিভিশনে সম্প্রচারিত ভাষণে পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়া মেরিনো তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের প্রতি ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করার আহ্বান জানিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার পেরুর অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেন ম্যানুয়েল মেরিনো। তার পূর্বসূরি মার্টিন ভিজকারার বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠলে তাকে অপসারণের পক্ষে রায় দেয় দেশটির বিরোধী দল নিয়ন্ত্রিত কংগ্রেস। তবে নিজের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ভিজকারা।

মেরিনোর পর ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে বামপন্থী সংসদ সদস্য ও মানবাধিকার কর্মী রোসিও সিলভা-সান্তিস্টেবানের নাম বেশি শোনা গেলেও পেরুর কংগ্রেসে প্রথম ভোটে তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেননি।

রোববার সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত দ্বিতীয় ভোট হওয়ার কথা রয়েছে।