পিরামিডের রহস্য জানতে নিউটনের অভিনব চেষ্টা!

144

মিসরের পিরামিডের গোপন কোড খুঁজে বের করার চেষ্টা করেছিলেন খ্যাতনামা ব্রিটিশ গণিতবিদ স্যার আইজ্যাক নিউটন।সম্প্রতি পাওয়া তার হাতে লেখা কিছু নথিপত্রে এমন তথ্য উঠে এসেছে। তার বিশ্বাস ছিল, মিসরের সুপ্রাচীন অবকাঠামোগুলোর মধ্যেই কোথাও পিরামিডের মতো রহস্যজনক বিশাল স্থাপনার চাবি লুকানো আছে।

ক্লাসিক্যাল পদার্থবিদ্যার ভিত্তি প্রতিষ্ঠা করেছেন বিজ্ঞানী নিউটন। গতিতত্ত্ব, মাধ্যাকর্ষণ নিয়েও তিনি কাজ করেছেন।

আলকেমি তথা রসায়ন ও ধর্মতত্ত্বের অস্পষ্ট বিষয় নিয়েও তার গোপন আগ্রহ ছিল, যা নিউটনের মৃত্যুর ২০০ বছর পর সবাই জানতে পারে।

তবে নিউটনের এতদিন অপ্রকাশিত কিছু নোটের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, তিনি বাইবেলের লুকানো অর্থ উদ্ধারের চেষ্টা করেছেন।

এমনকি মিসরের পিরামিড নিয়েও আগ্রহ ছিল তার। তার লেখা তিন পৃষ্ঠার একটি এলোমেলো নোটে তার প্রমাণ মিলেছে।

নিউটনের বিশ্বাস ছিল পিরামিডের মধ্যে গভীর রহস্য লুকানো আছে। তবে নিউটনের হাতের লেখা সেই নোটের কিছু অংশ পুড়ে যায় তার পোষা কুকুর ডায়মন্ডের কারণে।

আংশিক পুড়ে যাওয়া ওই নথি বিষয়ে বিশ্লেষকরা বলছেন, ১৬৮০ দশক থেকেই পিরামিড নিয়ে নিউটন গবেষণা করতে শুরু করেন। তবে তার সেই গবেষণাকে সেসময় স্বীকৃতি দেয়নি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়। তার চিন্তাভাবনা শুধু মিসর নয়, গোটা বিশ্বকে প্রভাবিত করেছিল।

বিশ্বের বাজারে কিভাবে পিরামিড নিজেকে বহু বছর ধরে অক্ষত রাখবে তা-ও ছিল তার গবেষণায়। স্থাপত্য শিল্পে তার সেই চিন্তা আজও সমৃদ্ধ করেছে বিশ্বকে। ১৭ দশকে পিরামিড নিয়ে তার গবেষণা অন্যদের থেকে তাকে আলাদা করেছিল।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান