বাইডেন বলেছেন তাঁর মনোযোগ জনগণের দুঃখ দূর্দশা দূর করার দিকে

115

গতকাল তাঁর ওভাল দপ্তরে যখন সংবাদদাতারা জানতে চান যে তিনি কি এই বিচার দেখছেন তখন তাঁর উত্তর ছিল, না দেখছি না। তিনি বলেন , “ আমরা এর্‌ই মধ্যে সাড়ে চার লক্ষ লোককে হারিয়েছি আর আমরা যদি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করি তা হলে আরও লোককে হারাতে পারি। অনেক শিশুই ক্ষুধার্ত অবস্থায় ঘুমাতে যাচ্ছে , অনেক পরিবারই খাদ্যের অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে । তারা প্রচন্ড অসুবিধায় রয়েছে। এটাই হচ্ছে আমার কাজ । সেনেটের নিজেদের কাজ আছে , তারা তাদের কাজ শুরু করতে যাচ্ছে এবং আমি নিশ্চিত তারা তাদের কাজ ভাল ভাবেই করবে”। প্রেসিডেন্ট আরও বলেন যে তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিশংসন সম্পর্কে আর কিছু বলবেন না।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন যে সেনেটে তাঁর পূর্বসূরি প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন বিষয়ে বিচার যখন শুরু হতে চলেছে তখন তাঁর মনোযোগ থাকবে করোনাভাইরাস মহামারির যন্ত্রনা থেকে মানুষকে মুক্তি দেয়া । গতকাল তাঁর ওভাল দপ্তরে যখন সংবাদদাতারা জানতে চান যে তিনি কি এই বিচার দেখছেন তখন তাঁর উত্তর ছিল, না দেখছি না। তিনি বলেন , “ আমরা এর্‌ই মধ্যে সাড়ে চার লক্ষ লোককে হারিয়েছি আর আমরা যদি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করি তা হলে আরও লোককে হারাতে পারি। অনেক শিশুই ক্ষুধার্ত অবস্থায় ঘুমাতে যাচ্ছে , অনেক পরিবারই খাদ্যের অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে । তারা প্রচন্ড অসুবিধায় রয়েছে। এটাই হচ্ছে আমার কাজ । সেনেটের নিজেদের কাজ আছে , তারা তাদের কাজ শুরু করতে যাচ্ছে এবং আমি নিশ্চিত তারা তাদের কাজ ভাল ভাবেই করবে”। প্রেসিডেন্ট আরও বলেন যে তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিশংসন সম্পর্কে আর কিছু বলবেন না।

এর আগে গতকাল সংববদাতারা হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব জেন সাকির কাছে যখন সেনেটের এই ঐতিহাসিক সভা সম্পর্কে বাইডেনের প্রতিক্রিয়া জানতে চান , তখন প্রেস সচিব বলেন, “ তিনি কোন পন্ডিত নন। তিনি এই তর্ক বিতর্ক সম্পর্কে কোন মতামত দেবেন না , তিনি এই অধিবেশন দেখছেন না। প্রেস সচিব আরও বলেন , “ প্রেসিডেন্ট অপেক্ষা করবেন সেনেটে এর ফলাফল সম্পর্কে। তিনি মনে করেন তাঁর ভূমিকা হচ্ছে আমেরিকান জনগণের প্রয়োজনের দিকে নজর দেয়া , লোকজনকে কর্মজগতে ফিরিয়ে আনা এবং এই মহমারির মোকাবিলা করা”।