ভোররাতে আবারো হেফাজতের আহ্বায়ক কমিটি

150

হেফাজতের ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণার পর নতুন করে পাঁচ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে সংগঠনটি। রবিবার (২৫ এপ্রিল) রাত ১১টায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় সংগঠনটির আমীর জুনায়েদ বাবুনগরী। এরপর প্রথমে তিন সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করলেও ভোররাতে পাঁচ সদস্যের নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে ফেসবুকে পোস্ট দেয় তারা।

পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট হেফাজতে ইসলামের নতুন এই আহ্বায়ক কমিটিতে থাকছেন একজন করে প্রধান উপদেষ্টা, আমির, মহাসচিব ও দুইজন সদস্য। কমিটিতে প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে থাকছেন আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, আমির হিসেবে থাকছেন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম, সদস্য দুইজন হলেন- মাওলানা সালাহ উদ্দিন নানুপুরী এবং অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান। এই পাঁচ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি যত দ্রুত সম্ভব সংগঠনটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করবেন।

এর আগে রবিবার (২৫ এপ্রিল) রাত ১১টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় হেফাজতের ইসলাম বাংলাদেশের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুত্বপূর্ণ কিছু নেতার পরামর্শে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো। ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতে আহ্বায়ক কমিটির মাধ্যমে হেফাজতের কার্যক্রম শুরু হবে।

বাংলাদেশের একটি বড় কওমি মাদরাসা এবং হেফাজতে ইসলামের অন্যতম প্রধান কেন্দ্র চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদরাসা। এই মাদরাসা থেকে ২০১০ সালে হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। কিন্তু দলটির সাবেক আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর পর হেফাজতে ইসলাম রাজনৈতিক দলের দিকে মোড় নেয়। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ হেফাজতের কমিটিতে যুক্ত হতে থাকেন।