আলজাজিরার নারী সাংবাদিককে পিটিয়ে গ্রেফতার করল ইসরাইল

81

ইসরাইলের রর্বরতার খবর বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরায় গণমাধ্যমের ওপর বেজায় চটেছে ইহুদিবাদী দেশটি।

এর জের ধরে শনিবার অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমে বিক্ষোভের সংবাদ প্রচারকালে ইসরাইলি পুলিশ আলজাজিরার সাংবাদিক জিভারা বুদেইরিকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে তার ক্যামেরা ভাঙে এবং মারধরের পর গ্রেফতার করেছে। খবর আল জাজিরা ও আরব নিউজের।

কয়েক ঘণ্টা হেফাজতে রাখার পর তাকে মুক্তি দেওয়া হয়। এ সময় আলজাজিরার ক্যামেরাম্যান নাবিল মাজাবির সরঞ্জামাদিও ভাঙচুর করা হয়।

এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক কড়া নিন্দা জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম সমর্থক ও পর্যবেক্ষক সংগঠনগুলো।

শনিবার বিকেলে মুক্তি পাওয়ার কিছুক্ষণ পর বুদেইরি আলজাজিরাকে বলেন, তারা চতুর্দিক থেকে ছুটে আসলো, আমি জানি না কেন। তারা আমাকে লাথি মেরে দেয়ালের ওপর ফেলে দেয়।

তিনি বলেন, তারা আমাকে গাড়ির ভেতরও প্রচণ্ড জোরে লাথি মারে। এ সময় তারা আমাকে চতুর্দিক থেকে লাথি মারতে ছিল।

১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধে ফিলিস্তিনের পূর্ব জেরুজালেম, পশ্চিমতীর ও গাজা দখলের ৫৪তম বার্ষিকীতে ‘নাকাবা বা বিপর্যয়’ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচির সংবাদ সংগ্রহ করছিলেন বুদেইরি।

এর আগে গাজায় হামলার সময় সেখানে আলজাজিরা ও অ্যাসোসিয়েট প্রেস-এপির ব্যুরো অফিস বিমান হামলা চালিয়ে গুঁড়িয়ে দেয় ইসরায়েল। বহুতল ওই ভবনে আরও কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের কার্যালয় ছিল।