করোনায় সর্বোচ্চ ১৪৩ জনের মৃত্যু’র রেকর্ড, শনাক্ত ৮৩০১

68

দেশে করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ১৪৩ জনের মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছে আজ। এর আগে গত ২৭শে জুন দেশে ১১৯ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েদিল স্বাস্থ্য বিভাগ। এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৪ হাজার ৬৪৬ জনে। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৩০১ জন। সরকারি হিসাবে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত ৯ লাখ ২১ হাজার ৫৫৯ জন। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ৯০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৬৬৩ জন এবং এখন পর্যন্ত ৮ লাখ ২০ হাজার ৯১৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। আজ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে আরও জানানো হয়, ৫৬৬টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩২ হাজার ৯২৪টি নমুনা সংগ্রহ এবং ৩২ হাজার ৫৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

এখন পর্যন্ত ৬৬ লাখ ৪০ হাজার ৯৮২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ৯০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৯ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৯ শতাংশ।

এদিকে বিভাগ ভিত্তিক শনাক্তের হার বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন ৩৫ জন। শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৭৬ জন। এই বিভাগে শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৮৫ শতাংশ। ঢাকা জেলায় (মহানগরসহ) শনাক্তের হার ২০ দশমিক ২৪ শতাংশ। মারা গেছে ১২ জন।

ময়মনসিংহ বিভাগে মারা গেছেন ৩ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৮০ জন। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। চট্টগ্রামে মারা গেছেন ১৫ জন। এ বিভাগে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ১৭১ জন। শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ৪২ শতাংশ। রাজশাহীতে মারা গেছেন ১৯ জন। শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ২৭৯ জন। শনাক্তের হার ২৪ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। রংপুর বিভাগে মারা গেছেন ১০ জন। শনাক্তের সংখ্যা ৪৬৫ জন। শনাক্তের হার ৪০ দশমিক ৭৮ শতাংশ। খুলনা বিভাগে মারা গেছেন ৪৬ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ২৪৫ জন। শনাক্তের হার ৩৭ দশমিক ৬৩ শতাংশ। বরিশাল বিভাগে মারা গেছেন ৮ জন। শনাক্তের সংখ্যা ২৮৬ জন। শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৪০ শতাংশ। একই সময়ে সিলেট বিভাগে মারা গেছেন ৭ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৯৯ জন। শনাক্তের হার ২৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ।