বার্সা ও মেসিভক্তদের দুঃসংবাদ!

128

প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনাতেই থাকছেন লিওনেল মেসি। ক্লাবের দৈন্যদশার কথা চিন্তা করে নিজের বেতনের ৫০ শতাংশ কমিয়ে দিতেও রাজি মেসি।

গত মাসে এমন খবরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল মেসিভক্তরা ও বার্সা সমর্থকরা। কিন্তু সেই স্বস্তি ফের অস্বস্তিতে রূপ নিল ফুটবলবিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএনের এক খবরে।

স্পেনের দুই প্রখ্যাত সাংবাদিক সামুয়েল মার্সডেন ও মইজেস ইয়োরেন্সের বরাতে ইএসপিএন লিখেছে, অর্থের বলিদান দিয়ে চুক্তি নবায়ন করলেও বার্সার জার্সিতে মেসি এই মৌসুম শুরুতেই নামতে পারছেন না মাঠে।

বার্সার হয়ে বলে পা ছোঁয়াতে মেসিকে আরও ৬ মাস অপেক্ষা করতে হতে পারে।

বার্সার আর্থিক দুরবস্থার কারণেই ৬ মাস বসে থাকতে হবে মেসিকে – এমনটাই জানানো হয়েছে ওই প্রতিবেদনে।

এর ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, বার্সার বেতনের বিল এখনই লিগের অনুমোদিত বেতনের বিলের চেয়ে অনেক বেশি। সে ক্ষেত্রে মেসিকে ক্লাবের খেলোয়াড় হিসেবে নিবন্ধন করাতে গেলে বার্সাকে বেতনের বিল অনেক কমাতে হবে। সেই অঙ্কটা ২০ কোটি ইউরো!

এতো পরিমাণ অর্থ যতদিন কমাতে না পারবে বার্সা, ততদিন মেসিকে বসিয়েই রাখতে হবে। কারণ তাকে নিজেদের খেলোয়াড় হিসেবে নিবন্ধন করাতেই পারবে না বার্সা।

মেসির মতো একই পোড়া কপাল মেম্ফিস ডিপাই, সের্হিও আগুয়েরো, এমারসন রয়াল আর এরিক গার্সিয়ার। তারাও বার্সার হয়ে নামার অপেক্ষায়। কিন্তু বেতন কমানোর সেই নিয়মের প্যাঁচে পড়ে এই চার তারকাও ঝুলে আছেন।

এদিকে সময়ও ফুরিয়ে আসছে। ৩১ আগস্ট পর্যন্ত নতুন মৌসুমের জন্য দলবদল করতে পারবে ক্লাবগুলো।

ইএসপিএন জানিয়েছে, মেসি যদি চুক্তি নবায়ন করেন তবে বেতনের বিলের বোঝা কমিয়ে ৩১ আগস্টের মধ্যেই মেসিকে নিজেদের খেলোয়াড় হিসেবে নিবন্ধন করতে হবে বার্সাকে। অন্যথায় মৌসুমের শুরু থেকে বার্সার জার্সিতে খেলতে পারবেন না আর্জেন্টাইন খুদেরাজ। তাকে অপেক্ষা করতে হবে জানুয়ারিতে শীতকালীন দলবদলের সময় পর্যন্ত। অবশ্য তখনও আর্থিক অবস্থার উন্নতি সাপেক্ষে মেসিকে নিবন্ধন করাতে পারবে কাতালানের ক্লাব।