যুক্তরাষ্ট্রে উচ্ছেদের মুখে দেড় কোটির বেশি ভাড়াটিয়া

95

যুক্তরাষ্ট্রে উচ্ছেদের মুখে দেড় কোটির বেশি ভাড়াটিয়া। উচ্ছেদের স্থগিতাদেশের মেয়াদ স্থানীয় সময় শনিবার মধ্যরাতে শেষ হলেও কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। কংগ্রেসে স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়ানোর দাবি উঠলেও রিপাবলিকানদের বিরোধিতায় সেটা পাশ করানো সম্ভব হয়নি। কংগ্রেস ভবনের এক নারী কংগ্রেসম্যানসহ কয়েক জন এই দাবিতে অবস্থানও করেছেন। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

ভাড়াটিয়াদের রক্ষা করা না গেলে তা হবে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জন্য বড় ধরনের ধাক্কা। গত বৃহস্পতিবারই তিনি মহামারির কারণে ভাড়াটিয়া উচ্ছেদ স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন। শুক্রবার মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদ কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত ছাড়াই মুলতুবি হয়ে যায়। ডেমোক্র্যাটরা চাইলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতার অভাবে বিলটির মেয়াদ বাড়ানো যায়নি। মার্কিন সিনেটও শনিবার জরুরি অধিবেশনে বসে। কিন্তু সেখানেও বিষয়টি নিয়ে সমাধান হয়নি।

হোয়াইট হাউজ স্পষ্ট করেছে, তারা এককভাবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না। কারণ এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা রয়েছে। অ্যাসপেন ইনস্টিটিউট এবং কোভিড-১৯ এভিকশন ডিফেন্স প্রজেক্ট জানিয়েছে, সাড়ে ৬৫ লাখ বাসভবনে দেড় কোটির বেশি বাসিন্দা বাস করেন যাদের ভাড়া বকেয়া রয়েছে। বাড়ির মালিকরা তাদের কাছে ২ হাজার কোটি ডলার পাবেন।

ডেমোক্র্যাট সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন জানান, প্রত্যেক রাজ্যেই বাসিন্দারা কীভাবে এই পরিস্থিতি থেকে রক্ষা পাওয়া যায় তা নিয়ে বৈঠক করছেন। ডেমোক্রেটিক কংগ্রেসম্যান কোরি বুশ এবং আরো কয়েক জন এই ইস্যুতে মনোযোগ কাড়তে শুক্রবার সারারাত কংগ্রেস ভবনের বাইরে রাত কাটান।