কত দিন খেলবেন, জানালেন সাকিব

55

বাংলাদেশ ক্রিকেটের পঞ্চপাণ্ডবের মধ্যে মাঠের বাইরে আছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। ইনজুরির কারণে নিয়মিত মাঠে দেখা যাচ্ছে না তামিম ইকবালকে।

এদিকে জিম্বাবুয়ে সফরে গিয়ে টেস্ট ফরম্যাটে আর খেলবেন না বলে জানিয়েছেন বয়স ৩৫ ছাড়িয়ে যাওয়া মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এদিকে মুশফিকুর রহিম ও সাকিব আল হাসানের বয়স ৩৪ ছুঁয়েছে।

স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন চলে আসে— পঞ্চপাণ্ডবরা কতদিন দেশকে সার্ভিস দিয়ে যাবেন? কারণ গড়পড়তা ৩৬-৩৭ বছর পর্যন্ত খেলে থাকেন ক্রিকেটাররা।

২০২৭ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলতে পারবেন কি তারা? তখন তো তাদের বয়স ৪০ হয়ে যাবে।

এমন প্রশ্নে নিজের ক্যারিয়ারের কবে ইতি টানবেন তা জানালেন সাকিব আল হাসান।

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার জানালেন, ফিটনেস ও পারফরম্যান্স যতদিন থাকবে, ঠিক ততদিন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে রাখতে চান তিনি। বয়স ৪০ পেরিয়ে গেলেও খেলতে সমস্যা নেই তার।

সাকিবের ভাষ্য— ‘আসলে সময় নিয়ে বলা কঠিন। ৫ বছর নাকি ১০ বছর খেলতে পারব, এমনটি ভাবি না কখনও। যতদিন ফিট আছি এবং পারফরম্যান্স আছে, ততদিন খেলে যাওয়ার ইচ্ছা আছে। সেটি দেখি কতদিন সম্ভব হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ বছর পর্যন্ত সব পরিকল্পনা ঠিক আছে। সামনের বছরের পরিকল্পনা ওই বছরের শুরুতেই করব। এ বছর খুব বেশি খেলা আর নেই। নিষেধাজ্ঞার কারণে আমি অনেক খেলা মিস করেছি। তাই চেষ্টা থাকবে এ বছরটা খুব ভালোভাবে শেষ করার। পরে চিন্তা করে, সবার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে যেটি ভালো হয়, সেটি করা যাবে।’