চরম ক্ষুব্ধ ফ্রান্স, ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক বাতিল

28

অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে হওয়া নতুন চুক্তির কারণে চরম ক্ষুব্ধ ফ্রান্স। এর আগে নানাভাবে নিজেদের প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে দেশটি। এবার যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলেন ফ্রান্সের প্ররিতক্ষামন্ত্রী। সোমবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানায়।

তিন দেশের নতুন জোটের কারণে অস্ট্রেলিয়া সাবমেরিন নিয়ে ফ্রান্সের সঙ্গে মাল্টিবিলিয়ন ডলারের চুক্তি বাতিল করে। এতেই ক্ষিপ্ত হয় ফ্রান্স।

যদিও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলছেন, এ চুক্তি নিয়ে ফ্রান্সের চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

কিন্তু ফ্রান্স যে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর কথায় সন্তুষ্ট নয় তা স্পষ্ট।

দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লি চলতি সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেসের সঙ্গে লন্ডনে হতে যাওয়া বৈঠক বাতিল করে দিয়েছেন।

ফ্রান্সে ব্রিটেনের সাবেক রাষ্ট্রদূতলর্ড রিকেটস যার এ বৈঠকে সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করার কথা ছিল। তিনি জানান, এ বৈঠক স্থগিত হয়ে গেছে।

১৫ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের নেতারা এক ভার্চুয়াল সভায় নতুন একটি জোট গঠনের ঘোষণা দেন।

ভার্চুয়াল সভায় অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এ নতুন জোটকে তাদের সম্পর্ক জোরদারে ‘ঐতিহাসিক পদক্ষেপ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

চুক্তির আওতায় যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য অস্ট্রেলিয়াকে পরমাণু চালিত সাবমেরিন নির্মাণের প্রযুক্তি দিয়ে সহযোগিতা করবে।

এর প্রতিক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র মিলে যে জোট গঠন করেছে তার বিষয়ে আলোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়ায় দায়িত্ব পালন করা নিজের রাষ্ট্রদূতদের ডেকেছে ফ্রান্স।