জামিন পেলেন না আরিয়ান খান, বুধবার পর্যন্ত থাকতে হবে জেলে

43

মাদক কাণ্ডে জামিন পেলেন না শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান। বুধবার (২০ অক্টোবর) পর্যন্ত জেলেই থাকতে হবে শাহরুখপুত্রকে। বলিউড সুপারস্টার শাহরুখপুত্রে জামিনের আবেদনের রায় স্থগিত রাখল মুম্বাই সেশন কোর্ট। খবর জিনিউজের।

খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর হয়ে শুনানি করেন অ্য়াডিশানাল সলিসিটর জেনারেল অনীল সিং।

তিনি আদালতে জানান, কয়েক বছর ধরে প্রায় প্রত্যেকদিনই মাদক সেবন করতেন আরিয়ান খান। এমনকি মহাত্মা গান্ধীকে টেনে এনেও জামিন না দেওয়ার পক্ষে যুক্তি দেখান।

তিনি বলেন, ‘এটা মহাত্মা গান্ধীর দেশ। এই ধরনের স্বভাব দেশের যুবদের খারাপ পথে চালিত করবে।’

আরিয়ানের পক্ষে শুনানি করেন অমিত দেশাই। তিনি জানান, আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটকে হাতিয়ার করে যে অভিযোগ করছে কেন্দ্রীয় সংস্থা তা ভ্রান্ত। কারণ, আজকাল এমন ভাষাতেই কথা বলে যুব সমাজ।

আরিয়ান খানের বিরুদ্ধে আরও একটি গুরুতর অভিযোগ এনেছে এনসিবি।

মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার দাবি, মাদক নেওয়ার ক্ষেত্রে আরিয়ানের সঙ্গে বিদেশেরও কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। ওইসব লোকজন আন্তর্জাতিক মাদক চোরাচালান চক্রের সঙ্গে যুক্ত। ক্রুজে মাদক পার্টির মামলায় অভিযুক্তদের তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে আরিয়ান এবং ২ নম্বরে রয়েছে আরাবাজ মার্চেন্ট।

এদিকে, আরিয়ানের গ্রেফতার নিয়ে রাজনীতি দেখছেন অনেকে। পাশাপাশি তার গ্রেফতারের পেছনে তার ধর্ম পরিচয়ও দায়ী বলে দাবি করা হচ্ছে।

জম্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি দাবি করেছেন, আরিয়ান মুসলিম হওয়ার কারণেই তার জামিন নাকচ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, মাদক মামলায় আরিয়ানকে ১৪ দিন বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আরিয়ান ছাড়াও আরও ৫ জনকে ওই মামলায় গ্রেফতার করেছে এনসিবি। এদের সবাইকেই রাখা হয়েছে মুম্বইয়ের আর্থার রোড জেলে। ওই মামলায় গ্রেফতার ২ তরুণীকে রাখা হয়েছে বাইকুল্লার নারী কারাগারে।